এক কোটি ৩৫ লাখ মানুষ বুস্টার ডোজ নিয়েছেন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে টিকাদান কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। করোনা টিকার প্রথম এবং দ্বিতীয় ডোজের পাশাপাশি বুস্টার ডোজ কার্যক্রমও চলছে। দেশে এখন পর্যন্ত এক কোটি ৩৫ লাখ ৫১ হাজার ৯৫০ জনকে বুস্টার ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে একদিনেই ৯৭ হাজার ৭০৪ জনকে বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়।

রোববার (১৫ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন শাখার (এমআইএস) পরিচালক ও লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় (শনিবার) সারাদেশে প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে সাত হাজার ৬০ জনকে, দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে ৪৯ হাজার জনকে। এছাড়াও এই সময়ে বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে ৯৭ হাজার ৭০৪ জনকে। এদিন অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা, সিনোফার্ম, ফাইজার, মডার্না ও জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা দেওয়া হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, টিকাদান কার্যক্রমের আওতায় দেশে এখন পর্যন্ত প্রথম ডোজ নিয়েছেন ১২ কোটি ৮৬ লাখ ৬৭ হাজার ৪৫ জন। এছাড়া দুই ডোজ টিকার আওতায় এসেছেন (অর্থাৎ দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন) ১১ কোটি ৬৮ লাখ ৬৩ হাজার ৪৪০ জন।

গত বছরের ১ নভেম্বর থেকে বাংলাদেশে ১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। শিক্ষার্থীদের মধ্যে এ পর্যন্ত এক কোটি ৭৩ লাখ ২১ হাজার ৪৪২ জনকে প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে এক কোটি ৫৯ লাখ ২ হাজার ৫১৩ জনকে।

এছাড়াও দেশে এখন পর্যন্ত দুই লাখ ১৮ হাজার ৭০১ জন ভাসমান জনগোষ্ঠী টিকার আওতায় এসেছেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।